খেলা

মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল, ২০২০ (১১:২৫)

‘বড্ড অসময়ে আমাদের ছেড়ে গেল আমির-ওয়াহাব’

‘বড্ড অসময়ে আমাদের ছেড়ে গেল আমির-ওয়াহাব’

দুই বাঁহাতি পেসার মোহাম্মদ আমির ও ওয়াহাব রিয়াজ- দুজনই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আগুন ঝরাচ্ছেন পাকিস্তানের জার্সি গায়ে। দারুণ সম্ভাবনা ছিল টেস্ট ক্রিকেটেও দারুণ কিছু করার। কিন্তু সাদা বলের ক্রিকেটে মনোযোগ দিতে দুজনই ছেড়ে দিয়েছেন মর্যাদাপূর্ণ টেস্ট ক্রিকেট।

যা রীতিমতো হতবাক করে দিয়েছে পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ও বর্তমান বোলিং ওয়াকার ইউনিসকে। তার মতে, আমির-ওয়াহাব পাকিস্তানকে ধোঁকা দিয়েছে এবং ভুল সময়ে দেশের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছে। কেননা টেস্টে এ দুই পেসারের অভাব পূরণ করার অস্ত্র নেই পাকিস্তানের কাছে।

গত বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের ঠিক আগ দিয়ে সাদা পোশাকের ক্রিকেট ছেড়েছিলেন আমির ও ওয়াহাব। ফলে সেই সিরিজে পেসারের অভাব পূরণের জন্য বাধ্য হয়ে ১৬ বছরের তরুণ নাসিম শাহকে খেলায় পাকিস্তান।

নাসিমের শুরুটা প্রতিশ্রুতিশীল হয়েছে ঠিক, তবে দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের কাজ একদমই পছন্দ হয়নি ওয়াকারের। তাই তো তিনি বলেন, ‘ঠিক অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগে, ওরা আমাদের ধোকা দিলো। তখন তরুণ খেলোয়াড় নেয়া ছাড়া আমাদের সামনে কোন পথই খোলা ছিল না।’

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) করা ভিডিও কনফারেন্সে ওয়াকার আরও বলেন, ‘আমরা (কোচিং স্টাফ ও টিম ম্যানেজম্যান্ট) তখন নতুন দায়িত্ব নিয়েছি। এমন অবস্থায় সিদ্ধান্ত হয় যে, আমরা তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে যাব এবং দলের সঙ্গে রেখেই প্রস্তুত করব।’

তখন পাকিস্তানের নতুন কোচ এবং প্রধান নির্বাচক হয়েছিলেন মিসবাহ উল হক। তিনি বলেছিলেন, কে কোন ফরম্যাট খেলবে বা বিশ্রাম নেবে- এ সিদ্ধান্ত খেলোয়াড়দের হাতেই রাখা উচিৎ। আর এর সুবিধা নিয়েই আমির-ওয়াহাব এমন করতে পেরেছে বলে মনে করেন ওয়াকার।

তিনি বলেন, ‘এর কয়েকদিন আগেই মিসবাহ খেলোয়াড়দের হাতেই সিদ্ধান্ত রাখার পলিসির ব্যাপারে বলেছিল। আমরা এসব ঠিক করে দিতে পারি না, এমনটা বলেছিল মিসবাহ। কিন্তু তখন এই ব্যাপারে একটা নির্দিষ্ট গঠনতন্ত্রও দরকার ছিল। কারণ খেলোয়াড়রা যখন-তখন নিজের মনমতো কাজ করবে, তা তো হতে পারে না।’

গত জুলাই মাসে ওয়ার্কলোড ঠিক রাখতে টেস্ট থেকে অবসর নিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী আমির। ওয়াহাব অবসর নেননি। তবে সেপ্টেম্বর অনির্দিষ্টকালীন সময়ের জন্য টেস্ট থেকে বিরতি নিয়েছেন ৩৪ বছর বয়সী এ বাঁহাতি পেসার।

এ দুজন পেসার না থাকায় অস্ট্রেলিয়াতে অফফর্মে থাকা ইয়াসির শাহর সঙ্গে ইমরান খান, নাসিম শাহ, শাহীন শাহ আফ্রিদি, মোহাম্মদ মুসাদের মতো অনভিজ্ঞ বোলারদের নিয়ে খেলতে হয়েছে পাকিস্তানকে। একমাত্র পরিচিত মুখ ছিলেন মোহাম্মদ আব্বাস। সেই সিরিজের দুই ম্যাচেই ইনিংস ব্যবধানে হেরেছিল পাকিস্তান।

ওয়াকার মানছেন, আমির-ওয়াহাব থাকলেই যে তারা অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে দিতেন- বিষয়টা এমন নয়। তবে এ দুজন থাকলে তরুণ খেলোয়াড়দের শক্ত করে গড়ার জন্য যথেষ্ঠ সময় পেত পাকিস্তান। কিন্তু আমির-ওয়াহাব ভুল সময়ে ছেড়ে যাওয়ায় সব পরিকল্পনাই গোলমেলে হয়ে গেছে।

পাকিস্তানের বোলিং কোচ বলেন, ‘এমন নয় যে, ওরা থাকলে আমরা নিশ্চিতভাবেই জিতে যেতাম। তবে যা করেছি, তার চেয়ে ভাল ফল হতো নিশ্চয়ই। আমির-ওয়াহাব চলে যাওয়ায় আমরা অনেক কিছু হারিয়েছি, বিষয়টা এমন নয়। তবে ওরা বড্ড ভুল সময়ে আমাদের ছেড়ে গেছে। যাই হোক, আমি এখনও মনে করি, সাদা বলের ক্রিকেটে ওরা পাকিস্তানকে অনেক কিছু দিতে পারবে।’/জাগো

এছাড়াও রয়েছে

বিশপের দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে একমাত্র অলরাউন্ডার সাকিব

ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর নিশ্চিত

খুলনা জেলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক কাজলের মৃত্যু

'লালার ব্যবহার বন্ধ করলে ক্রিকেট বিরক্তিকর হবে'

শিরোপার পথে বড় এক লাফ বায়ার্নের

ধর্ষণের অভিযোগে নিষিদ্ধ বার্তে

হেরোইন রাখার দায়ে নিষিদ্ধ হলেন মাদুশঙ্কা

অনুশীলনে ফিরেছে উইন্ডিজ টেস্ট দল

আরও খবর

  • ফলের পুডিং যেভাবে তৈরি করবেন

    ফলের পুডিং যেভাবে তৈরি করবেন

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ১ লাখ ছাড়াল

    যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ১ লাখ ছাড়াল

  • কঙ্গোয় বিদ্রোহীদের হাতে ৪০ গ্রামবাসী নিহত

    কঙ্গোয় বিদ্রোহীদের হাতে ৪০ গ্রামবাসী নিহত

  • বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত প্রায় ৫৭ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৩ লাখ

    বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত প্রায় ৫৭ লাখ, মৃত্যু সাড়ে ৩ লাখ

সর্বশেষ খবর

বিশপের দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে একমাত্র অলরাউন্ডার সাকিব

ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর নিশ্চিত

জিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী : কর্মসূচি জানিয়ে ডিএমপি কমিশনারকে চিঠি

পঙ্গপাল দমনে ভারতে ১ হাজার জলকামান, সতর্কবার্তা জারি