খেলা

রবিবার, ০৭ জুলাই, ২০১৯ (১০:৩৪)

শ্রীলংকাকে হারাল ভারত

শ্রীলংকাকে হারাল ভারত

দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরিতে শ্রীলংকাকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে ভারত। এই জয়ের ফলে সর্বোচ্চ ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বাদশ ক্রিকেট বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়াকে পিছনে ফেলে টেবিলের শীর্ষে ভারত। তবে অন্য ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে অস্ট্রেলিয়া হারলে ভারত শীর্ষেই থাকবে। আর অস্ট্রেলিয়া জিতে গেলে সর্বোচ্চ ১৬ পয়েন্ট নিয়ে অস্ট্রেলিয়াই থাকবে শীর্ষে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচটি চলছিল। জয়ের জন্য ২৬৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে খেলতে নেমে রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরিতে ৪৩.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় আগেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা

লোকেশ রাহুল আর রোহিত শর্মা মিলে ওপেনিং জুটিতে ১৮৯ রানের বিশাল পার্টনাশীপ গড়ে ভারতকে বড় জয়ের পথে নিয়ে যায়। দু-জনেই সেঞ্চুরি পেয়েছেন এই ম্যাচে। দলীয় ১৮৯ রানে রোহিত শর্মার বিদায়ে ভাঙ্গে এই এই সফল জুটি। তবে কাসুন রাজিথার বলে ম্যাথুসকে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে রোহিত শর্মা সেঞ্চুরিসহ ১০৩ রান করেন। মাত্র ৯৪ বলে ১৪ চার আর ২ ছক্কায় রোহিত সাজান তার ১০৩ রানের ইনিংস। টুর্নামেন্টে পঞ্চম এবং টানা তিন সেঞ্চুরি করে ম্যাচ সেরা নির্বাচিতও হন ভারতীয় দলের সহ-অধিনায়ক। আর এই সেঞ্চুরি দিয়েই কুমার সাঙ্গাকারাকে ছাড়িয়ে এক বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৫টি সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়লেন রোহিত শর্মা।

এর আগে লঙ্কান কিংবদন্তি ও রোহিত চারটি সেঞ্চুরি নিয়ে যৌথভাবে শীর্ষে ছিলেন। যেখানে ২০১৫’র আসরে টানা চারটি সেঞ্চুরি করেছিলেন সাঙ্গাকারা। এছাড়া সাকিব আল হাসানকে ছাড়িয়ে চলমান বিশ্বকাপে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের শিখরে উঠেছেন রোহিত শর্মা। শ্রীলংকার বিপক্ষে অপরাজিত ৬৩ রান করার পথে শীর্ষে ওঠেন তিনি। পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬৪ রানের ইনিংস খেলার পর ৬০৬ রান করেছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। বর্তমানে তার অবস্থান দ্বিতীয়। এদিকে রোহিত ৫৬ রান করার পথে সাকিবের আরেকটি রেকর্ডে ভাগ বসান। ইতিহাসের মাত্র চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে বিশ্বকাপে ৬০০ রান করার কীর্তি গড়েন তিনি।

এর আগে সাকিব ছাড়াও ভারতের শচীন টেন্ডুলকার ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাথু হেইডেন ৬’শ রানের মাইলফলক গড়েছিলেন। রোহিতের পর গতকাল সেঞ্চুরি করেছেন অপর ওপেনার লোকেশ রাহুলও। দলীয় ২৪৪ রানে মালিঙ্গার বলে আউট হওয়ার আগে রাহুল ১১৮বলে ১১ চার আর ১ ছক্কায় ১১১ রানের ইনিংস সাজান রাহুল। দু-ওপেনার সেঞ্চুরি করে দলকে বড় জয়ের খুব কাছেই নিয়ে যায়। ব্যাট করতে নেমে ঋষভ পান্থ ৪ রান করে উদানার বলে এলবি আউট হলে ভারত ২৫৩ রানে হারায় তৃতীয় উইকেট।

শেষ পর্যন্ত অধিনায়ক বিরাট কোহলির অপরাজিত ৪০ ও হার্ডিক পান্ডিয়ার অপরাজিত ৭ রানে ভারত ৩ উইকেটে ৪৩.৩ ওভারে ২৬৫ রান করে ম্যাচ জিতে ৭ উইকেটে।

এর আগে সাবেক অধিনায়ক এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের সেঞ্চুরিতে ভারতের বিপক্ষে ৭ উইকেট ২৬৪ রান করেছে শ্রীলংকা।চলতি বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের শেষ ও দিনের প্রথম ম্যাচে হেডিংলিতে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা ভারতের বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলংকা অধিনায়ক দিমুথ করুনারতেœ। তবে ব্যাট হাতে নেমেই জসপ্রিত বুমরাহর তোপে পড়ে লংকানরা। ব্যক্তিগত ১০ রানেই করুনারতেœ বুমরাহর প্রথম শিকার হন। ধোনির হাতে ক্যাচ দিয়ে ১৭ বল মোকাবেলা করে দুটি বাউন্ডারি হাকিয়ে বিদায় নেন করুনারত্নে।

আরেক ওপেনার কুসল পেরেরা ভাল শুরুর ইঙ্গিত দিয়ে শুরু করলেও সেটা ধরে রাখতে পারেননি। ১৪ বল মোকাবেলায় তিন বাউন্ডিারতে ১৮ রান করে বুমরাহর দ্বিতীয় শিকারে পরিনত হলে দলীয় ৪০ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় লংকানরা। এরপর গত ম্যাচে সেঞ্চুরি করা আবিস্কা ফার্নান্দো ২০ ও কুসল মেন্ডিজ ৩ রানে যথাক্রমে হার্ডিক পান্ডিয়া ও টুর্নামেন্টে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা রবীন্দ্র জাদেজার শিকার হলে ১২তম ওভারে ৫৫ রানেই চার উইকেট হারিয়ে ফেলে উপমহাদেশের দলটি।

এমন অবস্থায় স্বল্প রানে গুটিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা সৃস্টি হলেও সেটি হতে দেননি সাবেক অধিনায়ক অভিজ্ঞ ম্যাথুজ এবং লাহিরু থিরিমান্নে। পঞ্চম উইকেট জুটিতে শক্তভাবে হাল ধরে দলের স্কোর বড়াতে থাকেন ম্যাথুজ-থিরিমান্নে। ৫৫ রানে ৪ উইকেট হারানো লংকানরা ২৫তম ওভারেই পৌঁছে যায় ১০২ রানে। দীর্ঘ দিন যাবত ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করা ম্যাথুজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তৃতীয় সেঞ্চুরি এবং লাহিরু থিরিমান্নের ২১তম হাফ সেঞ্চুরিতে সম্মানজনক স্কোর গড়তে সক্ষম হয় শ্রীলংকা। পঞ্চম উইকেট জুটিতে তারা ১২৪ রান যোগ করার পর আঘাত হানেন স্পিনার কুল দীপ যাদব। ৬৮ বলে চার বাউন্ডারিতে ৫৩ রান করে থিরিমান্নে আউট হলে ১৭৯ রানে পঞ্চম উইকেট হারায় লংকানরা।

তবে এরপরও একপ্রান্ত আগলে রেখে রানের চাকা সচল রাখেন ম্যাথুজ। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার সঙ্গে ৬৪ বলে ৭৪ রান যোগ করে ৪৯তম ওভারে দলীয় ২৫৩ রানে আউট হন অলরাউন্ডার ম্যাথুজ। ১২৮ বল মোকাবেলায় ১০ বাউন্ডারি ও ২ ওভার বাউন্ডারিতে ১১৩ রান করে বুমরাহ তৃতীয় শিকারে পরিনত হন ম্যাথুজ। থিসারা পেরেরা ২ রান করে ভুবনেশ্বর কুমারের শিকার হলেও ৩৬ বলে ২৯ রানে অপরাজিত থাকেন ডি সিলভা।

৩৭ রানে তিন উইকেট নেন বুমরাহ। এছাড়া কুমার, পান্ডিয়া,যাদেজা এবং কুলদীপ নেন ১টি করে উইকেট।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নতুন কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো

অবসরের প্রশ্নে দুই মাস সময় চাইলেন মাশরাফি

গল টেস্ট: আজ জিততে মাঠে নামবে লংকানরা

লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের শুভ সূচনা

রবি শাস্ত্রীই ভারতের কোচ

উয়েফা বর্ষসেরা তালিকায় মেসি-রোনালদো

কলকাতার প্রধান কোচ হলেন ম্যাককালাম

মেসিকে ছাড়াই প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে বার্সা

সর্বশেষ খবর

মন্ত্রণালয়গুলোকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কাঁদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ির মত বিএনপি: কাদের

আফগানিস্তানে বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ৬৩

অবসরের প্রশ্নে দুই মাস সময় চাইলেন মাশরাফি