স্থানীয়/জনপদ

সোমবার, ১৫ জুলাই, ২০১৯ (১৫:৩০)

আদালতে বিচারকের সামনে ছুরিকাঘাতে আসামি খুন

আদালতে বিচারকের সামনে ছুরিকাঘাতে আসামি খুন

কুমিল্লায় একটি হত্যা মামলার শুনানি চলাকালে বিচারকের সামনে আসামি মো. হাসানের ছুরিকাঘাতে অপর আসামি মো. ফারুক (২৮) নিহত হয়েছেন। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক ফাতেমা ফেরদৌসের আদালতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আদালত এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ঘাতক হাসানকে আটক করে পুলিশ।

নিহত মো. ফারুক কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার অহিদ উল্লাহর ছেলে এবং ঘাতক হাসান জেলার লাকসাম উপজেলার ভোজপুর গ্রামের শহীদুল্লাহর ছেলে।

আইনজীবী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতে জেলার মনোহরগঞ্জ থানার ২০০৭ সালের একটি হত্যা মামলার বিচারিক কার্যক্রম চলছিল। এসময় ওই হত্যা মামলার আসামি হাসান হঠাৎ করে তার সহযোগী আসামি ফারুককে ছুরিকাঘাত করে। এতে ফারুক দৌঁড়ে বিচারকের খাস কামরায় গিয়ে আশ্রয় নেন। এসময় হাসান দৌঁড়ে ওই কামরায় গিয়ে ফারুককে আবারও উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় আদালতের পুলিশ, আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীরা হাসানকে ধরে ফেলে।

গুরুতর আহত ফারুককে প্রথমে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে ও পরে আশংকাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেছেন। নিহত ওই ব্যক্তি ও ঘাতক উভয়ে হত্যা মামলার আসামি ছিল।

সূত্রঃ ইন্টারনেট

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

সাঁথিয়ায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনি, নিহত ২

মিরপুরে বস্তিতে ভয়াবহ আগুন, আড়াই হাজার ঘর পুড়ে ছাই

গৌরীপুরে বাস প্রাইভেটকারের মূখোমুখি সংঘর্ষে ৪ জন নিহত

রাজধানীতে ৩২ তলা ভবন থেকে পড়ে কলেজছাত্রীর মৃত্যু

যশোরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী নিহত

বগুড়ায় দুই দল সন্ত্রাসীর মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ নিহত ২

রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু

কাঁঠালবাগানে এসি বিস্ফোরণে একই পরিবারে দগ্ধ চার

সর্বশেষ খবর

মন্ত্রণালয়গুলোকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কাঁদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ির মত বিএনপি: কাদের

আফগানিস্তানে বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ৬৩

অবসরের প্রশ্নে দুই মাস সময় চাইলেন মাশরাফি