বিশেষ প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ (১৬:৩৫)

আন্তর্জাতিকভাবে মোকাবেলার তাগিদ আমেনা মহসিনের

আন্তর্জাতিকভাবে-মোকাবেলার-তাগিদ-আমেনা-মহসিনের

আমেনা মহসিন

সামরিক সংঘাতে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা লাখ লাখ রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিপাকে বাংলাদেশ। একদিকে বন্যার ক্ষয়-ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই এমন সমস্যা মোকাবেলায় বেশ বেগ পেতে হচ্ছে সরকারকে।

এ সংকট আন্তর্জাতিকভাবে মোকাবেলার তাগিদ দেন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক আমেনা মহসিন।

এক্ষেত্রে কূটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ওআইসি কিংবা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভায় প্রস্তাব রাখার পরামর্শ তাদের।

একই সঙ্গে বাংলাদেশের স্বার্থান্বেষী মহল যাতে রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করতে না পারে সেদিকে নজরদারি বাড়ানো উচিৎ বলে মনে করছেন তারা।

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে দীর্ঘদিন ধরে কূটনৈতিকভাবে বাংলাদেশ চেষ্টা করে আসলেও পরিস্থিতির উন্নতির চেয়ে অবনতিই বেশি হতে দেখা গেছে। যার প্রত্যক্ষ প্রমাণ আট মাসের ব্যবধানে লক্ষাধিক রোহিঙ্গার বাংলাদশমুখী ঢল।

যদিও এবার রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে নানামুখী তৎপরতা চালাতে শুরু করেছে মুসলিম প্রধান দুই দেশ তুরস্ক ও ইন্দোনেশিয়া। কিন্তু সবচেয়ে বড় ধাক্কা বাংলাদেশকেই সামলাতে হচ্ছে।

এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে— এই সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশকে কূটনৈতিক তৎপরতা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রয়োজনে আসছে জাতিসংঘ পরিষদের সাধারণ সভায় প্রস্তাব রাখারও তাগিদ দিয়েছেন অধ্যাপক আমেনা মহসিন।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নেবার বিষয়টিকে সমর্থন করবে না চীন বলেন আমেনা মহসিন।

আমেনা মহসিন বলেন, বাংলাদেশ এটা জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে অবশ্যই আনতে পারে এবং আনা প্রয়োজন আছে।

বাংলাদেশ সরকারের সামনে নির্বাচন, সেটাও সরকারকে মাথায় রাখতে হবে। এ ইস্যু তুলে যেন কেউ রাজনীতি না করতে পারে অথবা রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করতে না পারে সেদিকে সরকারকে কঠোর নজরদারি রাখতে হবে বলে মনে করেন তিনি।

পাশাপাশি আঞ্চলিক দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনার সঙ্গে মিয়ানমারের সঙ্গে দিপাক্ষিক তৎপরতা চালিয়ে যেতে হবে। এতেও মিয়ানমার নিজের অবস্থান পরিবর্তন না করলে বিকল্প পন্থা খোঁজার পরামর্শ দিলেন আরেক বিশেষজ্ঞ।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

বেড়েছে শিশুদের ওপর হত্যা-ধর্ষণের ঘটনা

আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়, মতামত বিশিষ্টজনদের

সাফল্য-ব্যর্থতা, সংকট-সুরাহায় নানা উদ্যোগের মধ্যদিয়েই শেষ হলো ২০১৭

সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আরও খবর

১২৫ রানে গুটিয়ে গেল জিম্বাবুয়ে

রংপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

রাশিয়া থেকে যুদ্ধবিমান কিনেছে মিয়ানমার

কলম্বিয়ায় ভূমিধসের ধাক্কায় যাত্রীবাহী বাস গিরিসঙ্কটে, নিহত ১৩

যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

সিরিয়া-তুরস্ক সীমান্তে বাড়ছে উত্তেজনা

১২৫ রানে গুটিয়ে গেল জিম্বাবুয়ে

মেয়র হিসেবে না'গঞ্জবাসীর লিডার আমি: আইভী

নির্বাচনে এককভাবে অংশগ্রহণের ঘোষণা থেকে সরে আসল এরশাদ

ঘুষ লেনদেনের অভিযোগ: শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্মকর্তা-লেকহেড স্কুলের মালিক গ্রেপ্তার