সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: মিয়ানমারের সহিংসতা থেকে বাঁচতে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলেও তাদের শরণার্থী মর্যাদা বাংলাদেশ সরকার দেয়ার কথা চিন্তা করছে না: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব শাহ কামাল Desh TV Logo বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রস্তাবে গণশুনানি চলছে Desh TV Logo রাজধানী থেকে ৭ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ Desh TV Logo বিসিবি’র এজিএমের বৈধতা নিয়ে রিটের শুনানি শেষ, আদেশ কাল; ক্রিকেটের ভাবমূর্তি জাতীয় স্বার্থ, খর্ব করা যাবে না: রিটের শুনানিতে হাইকোর্ট Desh TV Logo এইচআইভি ভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই রোহিঙ্গা নারী চট্টগ্রাম মেডিকেলে ভর্তি Desh TV Logo কিশোরগঞ্জে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার, স্বামীসহ ৪ জন আটক Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: জার্মানির সাধারণ নির্বাচনে চতুর্থবারের মতো জয় পেয়েছে অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের দল Desh TV Logo ৭ উত্তর কোরিয়া, ভেনিজুয়েলা ও চাদের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ট্রাম্প প্রশাসন Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: তৃতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে ৫ উইকেটে হারিয়ে ৫ ম্যাচের সিরিজ ৩-০ তে জিতে নিয়েছে ভারত, সেই সঙ্গে আইসিসি ওয়ানডে র্যা ঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠেছে ভারত Desh TV Logo ফুটবল: এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে স্বাগতিক কাতারকে ২-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ Desh TV Logo সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে আজ থিম্পুতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নেপাল Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

শিক্ষা বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়

শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৪:৪৮)
শিক্ষা-বইয়ে-অপ্রাসঙ্গিকভাবেই-আনা-হয়েছে-ধর্মীয়-বিষয়

পাঠ্যবই

নতুন পাঠ্যপুস্তকে অসংখ্য ভুলের সঙ্গে রয়েছে নানা অসঙ্গতি এবং অপ্রাসঙ্গিক বিষয়ও— নিখাঁদ সাহিত্য ও ভাষা শিক্ষার বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই তুলে আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়।

হিন্দুত্ববাদের দোহাই দিয়ে বাদ দেয়া হয়েছে প্রগতিশীল লেখকদের গল্প, কবিতা। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক দুই স্তরেই যুক্ত করা হয়েছে ধর্মীয় ভাবধারার একাধিক গল্প, কবিতা।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এমন পরিবর্তন উদ্দেশ্য প্রণোদিত, সুপরিকল্পিতভাবে শিক্ষা ব্যবস্থায় মৌলবাদ ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টিকে বাঙালি জাতিকে সাম্প্রদায়িকীকরণের সংকেত হিসেবে দেখছেন তারা।

এবারের পাঠ্যবইয়ে ভুলভ্রান্তির পাশাপাশি বিতর্ক সৃষ্টি করেছে নতুন লেখা যোগ করা এবং পুরনো লেখা বাদ দেয়ার বিষয়। আর নয়টি শ্রেনিরই পাঠ্যবইয়ে কোনও না কোনো ভুল, বিকৃত তথ্য, কবিতার শব্দ ফেলে দিয়ে নতুন শব্দ বসানোর নজির তো আছেই।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রাথমকি ও মাধ্যমিক দুই স্তরের বাংলা বই থেকে ২০১২ সালে যে বিষয়গুলো বাদ দেয়া হয়েছিল, তার সবই ফিরে এসেছে ২০১৭ সালের সংস্করণে। আবার ২০১২ সালের বইয়ে নতুন যে বিষয় অন্তর্ভূক্ত হয়েছিল সেগুলো বাদ দেয়া হয়েছে।

প্রাথমিক স্তরের পরিমার্জিত নতুন বাংলা বইয়ে যুক্ত হয়েছে, দ্বিতীয় শ্রেনির বাংলা বইয়ে অর্ন্তভুক্ত হয়েছে ‘সবাই মিলে করি কাজ’, তৃতীয় শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’, চতুর্থ শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’, পঞ্চম শ্রেনিতে ‘বিদায় হজ’ ও ‘শহীদ তিতুমীর’ ‘শিক্ষাগুরুর মর্যাদা’।

আর বাদ পড়েছে, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হুমায়ুন আজাদের লেখা ‘বই’, কবি মোস্তফা রচিত ‘প্রার্থনা’।

এরমধ্যে ‘সবাই মিলে করি কাজ’ হযরত মুহাম্মদ (সা.) জীবনচরিত ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’ এবং ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’ শীর্ষক বিষয়গুলো বাংলা বইয়ে না থাকলেও ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষায় অর্ন্তভুক্ত ছিল।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এ পরিবর্তন ‘জাতীয় শিক্ষানীতি’ এবং সংবিধান পরিপন্থি।

হলি আর্টিজান, শোলাকিয়াসহ জঙ্গি কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা উল্লেখ অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী করে বলেন, এ পাঠ্যপুস্তকের মধ্য দিয়ে শিশুরা মৌলবাদ শিখে বেড়ে উঠবে, যা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার গড়া বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের হুমকি।

মূল ধারার শিক্ষা ব্যবস্থাকে মাদ্রাসা শিক্ষার দিকে ঠেলে দিয়ে, একটি গোষ্ঠীর দাবি মেটাতে সরকার আগামী প্রজন্মকে মৌলবাদি চিন্তা ধারায় গড়ে ওঠার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে, তা থেকে বের হয়ে আসার তাগিদ আরেক শিক্ষাবিদের।

২০১৩ সালে সংস্করণ করা পাঠ্যপুস্তকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরেছিল হেফাজতে ইসলাম। বিশেষজ্ঞদের মতে, সেই দাবিরই প্রতিফলন ঘটেছে এবারের পাঠ্যপুস্তকে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০