সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: দেশে প্রথমবারের মতো নানা আয়োজনে পালিত হচ্ছে জাতীয় গণহত্যা দিবস Desh TV Logo সেনাবাহিনীর প্যারা-কমান্ডো ইউনিটের নেতৃত্বে সিলেটের শিববাড়ি এলাকায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চলছে, ভবনে আটকে পড়া ২৮টি পরিবারকে উদ্ধার Desh TV Logo যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করতেই জঙ্গি হামলা চালাচ্ছে বিএনপি-জামাত: মোহাম্মদ নাসিম Desh TV Logo জঙ্গি পুুষিয়ে রেখে রাজনৈতিক সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করছে সরকার: মির্জা ফখরুল Desh TV Logo আগামী মাসে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বে নতুন জোট ঘোষণা করা হবে: দলের মহাসচিব Desh TV Logo গতকাল রাজধানীর আশকোনায় নিহত ব্যক্তি আত্মঘাতী বিস্ফোরণে মারা গেছেন, হাতে রেগুলেটর সাদৃশ যন্ত্র বাধা ছিলো: ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক Desh TV Logo বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাসিয়াখালী ইয়াংসায় বৃদ্ধ দম্পতিকে কুপিয়ে হত্যা, নিহত দম্পতি দেশ টিভির ভিডিও এডিটর জুয়েল মারমার বাবা-মা Desh TV Logo গাজীপুরের কালীগঞ্জে খ্রিস্টানপল্লীতে পুলিশের অভিযান, বাড়িঘরে হামলা; সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ৪, আহত ৩০ Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: নিজ দলের সমর্থন না পেয়ে কংগ্রেসে ভোটাভুটি ছাড়াই ‘স্বাস্থ্যসেবা বিল’ প্রত্যাহার করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, ব্যর্থতার জন্য দোষারোপ ডেমোক্র্যাটদের Desh TV Logo ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় লিল শহরে মেট্রো স্টেশনের কাছে কার পার্কে বন্দুকধারীর গুলিতে ৩ জন আহত Desh TV Logo রোম চুক্তির ৬০তম বার্ষিকী উদযাপনে ইতালির রাজধানীতে জড়ো হয়েছেন ইইউ নেতারা Desh TV Logo মসুলে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলায় ২০০ মানুষ নিহত হওয়ার আশঙ্কা জাতিসংঘের Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: বিকেল ৩টায় ডাম্বুলায় বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার প্রথম ওয়ানডে Desh TV Logo ধর্মশালা টেস্ট: ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়া; কাঁধের ইনজুরির কারণে এ টেস্ট খেলছেন না বিরাট কোহলি Desh TV Logo ফুটবল: বিশ্বকাপ বাছাই: আলবেনিয়া ০-২ ইতালি, স্পেন ৪-১ ইসরাইল; আজকের খেলা: সুইজারল্যান্ড-লাটভিয়া ও সুইডেন-বেলারুশ (রাত ১১টা), লুক্সেমবার্গ-ফ্রান্স ও পর্তুগাল-হাঙ্গেরি (রাত পৌনে ২টা) Desh TV Logo মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর নির্মাণে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত অভিযাত্রী পদযাত্রা শুরু কাল ভোর ৬টা থেকে, যোগাযোগ: ০১৮১৪৭৯২৬২৫ Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকেল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

শিক্ষা বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়

শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৪:৪৮)
শিক্ষা-বইয়ে-অপ্রাসঙ্গিকভাবেই-আনা-হয়েছে-ধর্মীয়-বিষয়

পাঠ্যবই

নতুন পাঠ্যপুস্তকে অসংখ্য ভুলের সঙ্গে রয়েছে নানা অসঙ্গতি এবং অপ্রাসঙ্গিক বিষয়ও— নিখাঁদ সাহিত্য ও ভাষা শিক্ষার বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই তুলে আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়।

হিন্দুত্ববাদের দোহাই দিয়ে বাদ দেয়া হয়েছে প্রগতিশীল লেখকদের গল্প, কবিতা। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক দুই স্তরেই যুক্ত করা হয়েছে ধর্মীয় ভাবধারার একাধিক গল্প, কবিতা।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এমন পরিবর্তন উদ্দেশ্য প্রণোদিত, সুপরিকল্পিতভাবে শিক্ষা ব্যবস্থায় মৌলবাদ ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টিকে বাঙালি জাতিকে সাম্প্রদায়িকীকরণের সংকেত হিসেবে দেখছেন তারা।

এবারের পাঠ্যবইয়ে ভুলভ্রান্তির পাশাপাশি বিতর্ক সৃষ্টি করেছে নতুন লেখা যোগ করা এবং পুরনো লেখা বাদ দেয়ার বিষয়। আর নয়টি শ্রেনিরই পাঠ্যবইয়ে কোনও না কোনো ভুল, বিকৃত তথ্য, কবিতার শব্দ ফেলে দিয়ে নতুন শব্দ বসানোর নজির তো আছেই।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রাথমকি ও মাধ্যমিক দুই স্তরের বাংলা বই থেকে ২০১২ সালে যে বিষয়গুলো বাদ দেয়া হয়েছিল, তার সবই ফিরে এসেছে ২০১৭ সালের সংস্করণে। আবার ২০১২ সালের বইয়ে নতুন যে বিষয় অন্তর্ভূক্ত হয়েছিল সেগুলো বাদ দেয়া হয়েছে।

প্রাথমিক স্তরের পরিমার্জিত নতুন বাংলা বইয়ে যুক্ত হয়েছে, দ্বিতীয় শ্রেনির বাংলা বইয়ে অর্ন্তভুক্ত হয়েছে ‘সবাই মিলে করি কাজ’, তৃতীয় শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’, চতুর্থ শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’, পঞ্চম শ্রেনিতে ‘বিদায় হজ’ ও ‘শহীদ তিতুমীর’ ‘শিক্ষাগুরুর মর্যাদা’।

আর বাদ পড়েছে, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হুমায়ুন আজাদের লেখা ‘বই’, কবি মোস্তফা রচিত ‘প্রার্থনা’।

এরমধ্যে ‘সবাই মিলে করি কাজ’ হযরত মুহাম্মদ (সা.) জীবনচরিত ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’ এবং ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’ শীর্ষক বিষয়গুলো বাংলা বইয়ে না থাকলেও ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষায় অর্ন্তভুক্ত ছিল।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এ পরিবর্তন ‘জাতীয় শিক্ষানীতি’ এবং সংবিধান পরিপন্থি।

হলি আর্টিজান, শোলাকিয়াসহ জঙ্গি কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা উল্লেখ অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী করে বলেন, এ পাঠ্যপুস্তকের মধ্য দিয়ে শিশুরা মৌলবাদ শিখে বেড়ে উঠবে, যা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার গড়া বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের হুমকি।

মূল ধারার শিক্ষা ব্যবস্থাকে মাদ্রাসা শিক্ষার দিকে ঠেলে দিয়ে, একটি গোষ্ঠীর দাবি মেটাতে সরকার আগামী প্রজন্মকে মৌলবাদি চিন্তা ধারায় গড়ে ওঠার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে, তা থেকে বের হয়ে আসার তাগিদ আরেক শিক্ষাবিদের।

২০১৩ সালে সংস্করণ করা পাঠ্যপুস্তকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরেছিল হেফাজতে ইসলাম। বিশেষজ্ঞদের মতে, সেই দাবিরই প্রতিফলন ঘটেছে এবারের পাঠ্যপুস্তকে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
 
 
 
 
 
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০
৩১