বিশেষ প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৬ (১৮:০০)

মহান বিজয় দিবস: জাতি উদযাপন করছে যুদ্ধজয়ের ৪৫তম বার্ষিকী

মহান-বিজয়-দিবস-জাতি-উদযাপন-করছে-যুদ্ধজয়ের-৪৫তম-বার্ষিকী

মহান বিজয় দিবস: জাতি উদযাপন করছে যুদ্ধজয়ের ৪৫তম বার্ষিকী

মহান বিজয় দিবস শুক্রবার –একাত্তরে দীর্ঘ নয় মাসের গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধের চূড়ান্ত বিজয়ের দিন। এ দিনেই হানাদার পাকিস্তানি বাহিনীর কমান্ডিং অফিসার নিয়াজি আত্মসমর্পণের দলিলে স্বাক্ষর করেন অস্ত্র সমর্পণ করে অনুগত সেনারা।

যাত্রা শুরু করে লালসবুজ পতাকার মুক্ত স্বাধীন বাংলাদেশ। জাতি এ বছর উদযাপন করছে যুদ্ধজয়ের ৪৫তম বার্ষিকী।

স্বাধীনতা দিবস অনেক দেশের থাকলেও বিজয় দিবসের গৌরব শুধুই বাঙালির। মৌলাবদের উত্থান রুখে দিয়ে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে তরুণ প্রজন্মই ভরসা বলে মনে করছেন বিশিষ্টজনরা।

১৯৭১ এর ১৬ ডিসেম্বরের প্রথম প্রভাতে পূব আকাশে যে সূর্যটি উদিত হয়েছিল তা ছিল বাংলাদেশের। বাঙালির বিজয়ের সূর্য। হাজার বছরের শোষণ-বঞ্চনা থেকে মুক্তির সূর্য।

অন্ধকার থেকে আলোর পথের সফল অভিযাত্রী এ ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের মুক্তিকামী মানুষ সেদিন প্রমাণ করেছিল প্রচণ্ড দেশপ্রেম আর সাহসের কাছে পৃথিবীর পরাক্রমশালী সশস্ত্র বাহিনীও কিছুই নয়।

বাধভাঙা জোয়ারের মত রাস্তায় নেমে আসে মানুষ। কণ্ঠে শ্লোগানের কোরাস, 'জয় বাংলা'। সবার মুখে বিজয়ের হাসি আর চোখে আনন্দের অশ্রু। চারদিক থেকে ছুটে আসছে জনস্রোত। গন্তব্য ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দান। যেখান থেকে ৯ মাস আগে জাতির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব উদ্দীপ্ত কণ্ঠে মুক্তির জন্য সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার আহবান জানিয়েছিলেন।

রক্ত দিয়ে কেনা সেই মুক্তি, সেই স্বাধীনতা, পল্লবিত হয়ে উঠলো রেসকোর্স ময়দানে শেষ হেমন্তের বিকালে। আত্মসমর্পনের দলিলে পাকিস্তানিদের পক্ষে স্বাক্ষর করেছিলেন জেনারেল নিয়াজি। সে খবর ছড়িয়ে পড়ে দেশের সর্বত্র। বাংলার আকাশে বাতাসে তখন মুক্তির আনন্দ।

স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যুদ্ধ করে দেশ শত্রুমুক্ত করার গৌরব খুব কম জাতিরই আছে বলে মনে করেন ইতিহাসবিদ মুনতাসির মামুন।

তিনি বলেন, এ অর্জন ধরে রাখতে হবে।

দীর্ঘ সাড়ে চার দশকে বাংলাদেশ বহুদূর এগিয়েছে বলে মনে করছেন মুক্তিযুদ্ধ গবেষক এ এস এম শামসুল আরেফিন ও ইতিহাসবিদ

মুনতাসির মামুন।

অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের পাশাপাশি মৌলবাদের উত্থানকে দেশের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন তারা।

দেশ টিভিকে তারা বলেন, সে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ভরসা নতুন প্রজন্ম।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

বেড়েছে শিশুদের ওপর হত্যা-ধর্ষণের ঘটনা

আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়, মতামত বিশিষ্টজনদের

সাফল্য-ব্যর্থতা, সংকট-সুরাহায় নানা উদ্যোগের মধ্যদিয়েই শেষ হলো ২০১৭

সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আরও খবর

দেশে রপ্তানি আয় বেড়েছে ৩ গুণ: শেখ হাসিনা

আইভী-শামীমের দ্বন্দ্ব অনাকাঙ্খিত: খন্দকার মোশাররফ

শামীম ওসমান-আইভিকে ডাকা হবে: ওবায়দুল

চট্টগ্রাম থেকে ফিরলেন প্রণব মুখার্জি

আন্তর্জাতিক নীতিমালা মেনে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের আহ্বান ইউএনএইচসিআরের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: চুক্তির বিষয়ে চারটি গভীর সংশয় প্রকাশ

দেশে রপ্তানি আয় বেড়েছে ৩ গুণ: শেখ হাসিনা

এক শ্রেণী অবৈধভাবে ক্ষমতায় যেতে চায়: শেখ হাসিনা

নবম ওয়েজবোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া এগিয়েছে: তারানা

আইভী-শামীমের দ্বন্দ্ব অনাকাঙ্খিত: খন্দকার মোশাররফ