রাজনীতি

বুধবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০১৯ (১৮:১৪)

বগুড়ায় বাগবিতণ্ডায় জড়ালেন মির্জা ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বগুড়া-৬ (সদর) আসন থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন ওই আসনেই জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলামের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন।

বগুড়ায় বুধবার দুপুরের শহরতলির গোকুলে হোটেল মম ইন-এ যাত্রা বিরতির সময় ফখরুলের সামনেই লিফটে বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন জেলা বিএনপির দুই নেতা।

এর আগ বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন বাক-বিতণ্ডায় এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে পর্যায়ে পৌঁছান। এসময় ফখরুল ইসলাম সভাপতি সাইফুলকে নিবৃত করার চেষ্টা করেন।

এ নিয়ে উভয় নেতার সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। তবে কী কারণে তাদের মধ্যে এ অবস্থার সৃষ্টি হয় সে সম্পর্কে জানা যায়নি।

ফোন বন্ধ রাখায় জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁনের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে সাইফুলের সমর্থক আবুল কালাম আজাদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ঠাকুরগাঁও থেকে সড়ক পথে ঢাকায় ফেরার পথে বুধবার দুপুরে বগুড়া শহরতলির গোকুলে হোটেল মম ইন-এ যাত্রা বিরতিকালে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এসময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আওয়ামী লীগ ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের নামে তামাশা করে আজ গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে। নির্বাচনে মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটেনি। তারা নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে। নির্বাচনের পর তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তাই আমরা ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছি। সব দলকে ঐক্যবদ্ধ করে বলেছি এ নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করতে হবে।

নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের বক্তব্যকে ‘চোরের মার বড় গলা’ বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।

বিএনপি মহাসচিব বলেন,‘ভোট ডাকাতি করে জয়লাভ করে এখন বলছেন, তারা দেশে জনপ্রিয়। কিন্তু জরিপ বলছে, ৯৯ শতাংশ মানুষ বিএনপির পক্ষে। তাই আওয়ামী লীগ এখন গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে।’

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের কারণে মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়া আজ জেলে আর তারেক রহমান বিদেশে। তাই খালেদা জিয়াকে জেল থেকে বের করতে, তারেক রহমানকে দেশে আনতে ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে বগুড়া থেকেই ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন শুরু করতে হবে।

বিএনপির সঙ্কটকালে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে ফখরুল বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা না করে ধ্বংস করা হয়েছে। তাদের ২০১৪ সালের নির্বাচন বয়কট করার সিদ্ধান্ত যে সঠিক ছিল, ২০১৮ সালের নির্বাচন তা প্রমাণ করেছে।

একাদশ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ পরাজিত হয়েছে, কারণ জনগণ ভোট দিতে পারেনি। এমনকি আওয়ামী লীগের ভোটাররাও ভোট দিতে পারেননি। এ কারণে আজ সারাদেশে বিএনপি ও ধানের শীষের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান তিনি।

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে কিনা সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, রেজাউল করিম বাদশা, সাবেক সাংসদ গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, আলী আজগর হেনা, শহর বিএনপির সভাপতি মাববুবুর রহমান বকুল, সাধারণ সম্পাদক হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেল, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন, মিজানুর রহমান, অ্যাডভোকেট জহুরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি নয়, হবে গণতামাশা: কাদের

জামাত নিষিদ্ধে আদালতের সিদ্ধান্তের দিকেই তাকিয়ে আ’লীগ: কাদের

জামাত ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধের বিচার চলবে: ওবায়দুল

রাজনৈতিক অঙ্গনে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই: ওবায়দুল

১৪ দলের ঐক্য নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়াতে আহ্বান

বিএনপির মামলা মোকাবেলা করবে ইসি: ওবায়দুল

গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগ: মঈন খান

জামাত থেকে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

সর্বশেষ খবর

ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি নয়, হবে গণতামাশা: কাদের

বঙ্গবন্ধুর ছবি না থাকায় ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইটি সরানোর নির্দেশ

বাংলাদেশের শ্রমিক নিয়োগে আমিরাতের ইতিবাচক সাড়া

বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী লুলু-এনএমসি গ্রুপ