রাজনীতি

শনিবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ (১৭:৩১)

সরকার গায়ের জোরে বিচার করছে: খালেদা জিয়া

খালেদা জিয়া

নিম্ন আদালত সরকারের কব্জায় বলেই বিচারকরা সঠিক রায় দেয়ার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। শনিবার দুপুরে রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় তিনি এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, কোনো অপরাধ নেই তবু সরকার গায়ের জোরে বিচার করছে। সরকার বিএনপিকে নির্বাচনের বাইরে রাখার নানা ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে সুযোগ দেওয়া হলে প্রশাসন নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে পারে।

আবারো নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানিয়ে যেকোন পরিস্থিতিতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে নেতাকর্মীদের আহ্বানও জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

উদ্বোধনী বক্তব্যের শুরুতেই তিনি অভিযোগ করেন, দেশে সুষ্ঠু গণতন্ত্রের চর্চা নেই বলে একরকম বাধ্য হয়েই হোটেলে সভার আয়োজন করতে হয়েছে।

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী নির্বাচনের দাবি জানিয়ে বেশ কয়েকটা শর্ত তুলে ধরেন বিএনপি চেয়ারপারসন। নিম্ন আদালত সরকারের পক্ষে থাকায় বিচারকদের সঠিক রায় দেওয়ার সুযোগ নেই বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সরকার প্রশাসনকে দলীয় কাজে ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। তবে তাদেরকে সুযোগ দেওয়া হলে তারা ন্যায়ের পক্ষে কাজ করবে বলে জানান খালেদা জিয়া।

গত কয়েকদিনে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে খালেদা জিয়া বলেন, বিএনপিকে নির্বাচন থেকে বাইরে রাখতেই এ জুলুম নির্যাতন।

নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে দলের জন্য ক্ষতিকর কিছু না করতেও সর্তক করে দেন তিনি।

প্রায় সোয়া এক ঘন্টার বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপারসন দেশের ক্রান্তিকালে জাতীয় ঐক্যের আহ্বানও জানান।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

খালেদাকে ছাড়া কোনো নির্বাচন নয়: বিএনপি

দেশে আগাম নির্বাচন হতে পারে, আশা এরশাদের

সারাদেশে বিএনপির গণস্বাক্ষর কর্মসূচি শুরু

খালেদা জিয়া ছাড়া নির্বাচন নয়: মির্জা ফখরুল

খালেদার সঙ্গে আজও দেখা মেলেনি নারী নেতাদের

মানুষ ভোটকেন্দ্রে গেলে আ’লীগের খবর আছে: মওদুদ

আগামী বৃহস্পতিবার সমাবেশ করতে চায় বিএনপি

ম্যাডামের সঙ্গে দেখা মিলল না আফরোজা আব্বাসের

খালেদাকে ছাড়া কোনো নির্বাচন নয়: বিএনপি

খালেদার আরও বেশি সাজা হওয়া উচিত ছিল: আইনমন্ত্রী

বস্তা দেয়া হচ্ছে হিমাগারে: পাট সচিব

ইরান-মেক্সিকোতে বিমান-হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, নিহত ৭৯