সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: ভারতের কাছে প্রতিবেশি দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে অগ্রাধিকার বেশি বাংলাদেশের: সুষমা স্বরাজ; ভারতের অর্থায়নে ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন Desh TV Logo রোহিঙ্গাদের সহায়তার বিষয়ে আজ জেনেভায় প্লেজিং কনফারেন্স, ৬ মাসের জন্য দাতাদের কাছে চাওয়া হবে ৪৪ কোটি ডলার Desh TV Logo রোহিঙ্গা পরিস্থিতি দেখতে কক্সবাজারে জর্ডানের রানী রানিয়া আল আব্দুল্লাহ Desh TV Logo রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আলোচনা করতে ৩ দিনের সরকারি সফরে আজ মিয়ানমার যাচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী Desh TV Logo নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় দেয়ালচাপায় তিন শিশুর মৃত্যু Desh TV Logo চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় একজনের মৃত্যু Desh TV Logo জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্ত্রী শিলা ইসলাম লন্ডনে মারা গেছেন, দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি; প্রধানমন্ত্রীর শোক Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: জাপানে আগাম নির্বাচনে বড় জয় এলডিপি জোটের, তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হতে চলছেন শিনজো আবে Desh TV Logo জাপানে টাইফুন ল্যানের তা-বে নিহত ২ Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ভারতকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড; স্কোর: ভারত ২৮০/৮, নিউজিল্যান্ড ২৮৪/৪ Desh TV Logo ফুটবল: ইপিএল: লিভারপুল ২-৪ টটেনহাম, এভারটন ২-৫ আর্সেনাল; লা লিগা: রিয়াল মাদ্রিদ ৩-০ এইবার Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

মিয়ানমারে থাকলে মরতে হবে, জানলো ৫ দেশের রাষ্ট্রদূত

বুধবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৭ (১৮:০৫)
মিয়ানমারে-থাকলে-মরতে-হবে,-জানলো-৫-দেশের-রাষ্ট্রদূত

মিয়ানমারে থাকলে মরতে হবে,

মিয়ানমারে রাখাইনে রোহিঙ্গা গ্রামের ধ্বংসযজ্ঞ প্রত্যক্ষ করেছেন বাংলাদেশসহ ৫ দেশের রাষ্ট্রদূত।

তারা সেন্ট মার্টিন দ্বীপের উল্টো দিকে জড়ো হওয়া কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গার কাছ থেকে শোনেন সেনাবাহিনীর বর্বর নির্যাতনের কাহিনী।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ, চীন, ভারত, থাইল্যান্ড ও লাওসের রাষ্ট্রদূতরা রাখাইন পরিদর্শনে যান।

এদিকে, ইয়াঙ্গুনে প্রথমবারের মতো মিয়ানমার সরকারের উদ্যোগে বৌদ্ধ সম্প্রদায় ও মুসলমানদের মধ্যকার উত্তেজনা প্রশমণে আন্তঃধর্মীয় প্রার্থনা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

একদিকে, সম্প্রীতির প্রার্থনা অন্যদিকে রোহিঙ্গা বিতাড়ন। বৌদ্ধ সম্প্রদায় ও মুসলমানদের মধ্যে উত্তেজনা প্রশমনে প্রথমবারের মতো সব ধর্মাবলম্বীদের নিয়ে সমাবেশ হয়েছে মিয়ানমারে।

মঙ্গলবার ইয়াঙ্গুনের একটি স্টেডিয়ামে প্রায় ৩০ হাজার বৌদ্ধ ভিক্ষু, হিন্দু, খ্রিস্টান ও মুসলমান আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির আহ্বান জানাতে জড়ো হন। এই সমাবেশ বিরোধ নিরসনে সুচি সরকারের প্রথম পদক্ষেপ।

সমাবেশে ইয়াঙ্গুনের প্রধান বৌদ্ধভিক্ষু ইদ্ধিবালা মুসলিম ধর্মীয় নেতা হাফিজ মুফতি আলীর সঙ্গে করমর্দন করেন।

বৌদ্ধভিক্ষু ইদ্ধিবালা একে অপরকে হত্যা, নির্যাতন, ধ্বংস বা বিনাশ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

আর দেশের নাগরিকদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকা উচিত বলে মনে করেন মুফতি আলী।

আর জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা-ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, সোমবারই নতুন করে সীমান্ত দিয়ে ১১ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে।

সেনাবাহিনী ও চরমপন্থী বৌদ্ধদের নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে তারা রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসছে বলে এসব রোহিঙ্গারা জানিয়েছে।

এদিকে, মিয়ানমারের ইউনিয়নমন্ত্রী টিন্ট সোয়ের আমন্ত্রণে রাখাইন সফর করেন বাংলাদেশ, ভারত, চীন, থাইল্যান্ড ও লাওসের রাষ্ট্রদূত।

তারা রাখাইনের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে পোড়া ঘরবাড়িসহ ধ্বংসযজ্ঞ প্রত্যক্ষ করেন।

এছাড়া সেইন্ট মার্টিন দ্বীপের উল্টো দিকে জড়ো হওয়া কিছু রোহিঙ্গার সঙ্গেও তাদের কথা হয়।

রোহিঙ্গারা রাষ্ট্রদূতদের জানিয়েছেন, মিয়ানমারে থাকলে তাদের হত্যা করা হবে তাই তারা বাংলাদেশে আশ্রয় চায়।

তারা আর কখনো মিয়ানমারে ফিরে যেতে চান না বলেও জানান।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
 
 
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০
৩১