শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন

শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৯ (১৩:১১)

ডাকসুর দায়িত্ব বুঝে নিল ভিপি-জিএস-এজিএস

ডাকসুর দায়িত্ব বুঝে নিল ভিপি-জিএস-এজিএস

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) সহ সভাপতি (ভিপি) পদে নুরুল হক নুর ও সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে গোলাম রাব্বানিসহ নির্বাচিতরা শনিবার তাদের দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন।

শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ভবনে ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত নেতৃত্বের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ডাকসুর সভাপতি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান এ দায়িত্ব তাদের হাতে তুলে দেন।

শনিবার সকালে ডাকসু ভবনে এ বৈঠকে ভিপি নুরুল হক নুরসহ ডাকসুর নবনির্বাচিত নেতারা অংশ নিয়েছেন।

ডাকসু ভবনের দ্বিতীয় তলার হল রুমে সকাল সাড়ে ১১টায় শুরু হওয়া এ সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান।

উপাচার্য পদাধিকার বলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন বাকিরা নির্বাচিত হন শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রীতি অনুযায়ী নির্বাচিত ছাত্র প্রতিনিধি ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিরা পরে অভিষেক অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন।

দীর্ঘদিন পর ডাকসুর প্রথম কার্যকরী সংসদের বৈঠকে অংশ নিতে সকাল সাড়ে ১১টার আগেই ডাকসু ভবনে উপস্থিত হন নুর ও সমাজসেবা সম্পাদক আকতার হোসেন।

গতকাল ডাকসুর ভিপি জানান নতুন করে ভোটের দাবিতে আন্দোলনে থেকেই ডাকসুর নবনির্বাচিত কার্যকরী পর্ষদের প্রথম সভা অংশগ্রহণ করবেন।

এ সভায় দায়িত্ব বুঝে পান ডাকসুর ২৫টি পদে নির্বাচিত শিক্ষার্থী প্রতিনিধিরা।

আর এর মধ্য দিয়ে ভিপি নূরুল হক নূর ও জিএস গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বাধীন ডাকসুর ৩৬৫দিনের মেয়াদ শুরু হলো।

গত ১১ মার্চ সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ডাকসুর সভাপতি মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

ঘোষিত ফল অনুযায়ী, সহ সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে জয়ী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন। ডাকসুর ২৫ পদের মধ্যে ২৩টিতেই ছাত্রলীগের প্রার্থীরা নির্বাচিত হন। সমাজসেবা সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী আখতার হোসেন।

আর ১৮টি হল সংসদের মধ্যে ১২টিতে ভিপি পদে বিজয়ী হয় ছাত্রলীগ নেতারাকর্মীরা। বাকি ৬টি হলে ভিপি পদে জয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

ভোট বর্জন করেও সহ সভাপতি (ভিপি) পদে বিজয়ী হন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্রার্থী নুরুল হক নূর।

নুরুল হকের নাম ঘোষণা করতেই বিক্ষোভ শুরু করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। কিছুক্ষণ অবরুদ্ধ থেকে বাকি পদে জয়ীদের নাম ঘোষণা করেন উপাচার্য।

কোটা আন্দোলনকারীদের প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, বাম জোট, ছাত্রদল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দুটি জোটের প্যানেল নতুন করে নির্বাচন দেয়ার দাবিতে আন্দোলনের ঘোষণা দেয়।

ডাকসুতে ২৫টি পদের ২৩টিতে সরকার সমর্থক ছাত্রলীগ জিতলেও ভিপিসহ দুটি পদে জয় পায় কোটা সংস্কার দাবির আন্দোলনকারীদের প্যানেল।

নূর ভিপির দায়িত্ব নিলেও পুনর্নির্বাচনের দাবিকেও সমর্থন করেন।

গতকাল-শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের যে সিদ্ধান্ত সেটা আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলাপ করেই নিয়েছি। তারা মনে করেন, আমরাও মনে করি যে পনুঃনির্বাচনের জন্য দায়িত্ব নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া উচিত এবং আমি সেটা করব।

এদিকে, দীর্ঘ ২৮ বছর ১০ মাস পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হয়।

ছাত্রলীগ ছাড়া প্রায় সব প্যানেল নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয়। আর ফল ঘোষণার পর ভিপি পদে পুনর্নিবাচন দাবি করে ছাত্রলীগ। ভোট বর্জন করা পাঁচটি প্যালেন ভোট বর্জন করে মানববন্ধন, অনশন কর্মসূচি পালন করেন। অবশেষে আজ তাদের অভিষক হলো।

ডাকসু- হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ। ১৯২৩ সালে 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ' নামে এর যাত্রা শুরু। ১৯২৪ সালে হয় প্রথম নির্বাচন। পরে ১৯৫৩ সালে গঠনতন্ত্র সংশোধন করে বর্তমান নাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ-ডাকসু করা হয়। স্বাধীনতার আগে এবং স্বাধীনতার পরে ৯০ সাল পর্যন্ত ডাকসু নির্বাচন হলেও এরপর থেকে সরকার এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সদিচ্ছার অভাবে বন্ধ হয়ে যায় নির্বাচন প্রক্রিয়া।

প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে বাংলাদেশের সামগ্রিক ইতিহাসে গৌরবময় ভূমিকা রাখে ডাকসু। ৫২'র ভাষা আন্দোলন, ৬২ এর শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬ এর ছয় দফা, ৬৯ এর গণঅভ্যূত্থান এবং ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধে ডাকসুর নেতৃত্বের ছিল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক চেতনা ও স্বাধিকার আন্দোলনের অন্যতম সুতিকাগার ডাকসুকে আবারো সচল করতে শুরু হয় আন্দোলন। ২০১২ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫ শিক্ষার্থী ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন। এরপর ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি উচ্চ আদালত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে ডাকসু নির্বাচনের নির্দেশনা দেয়। এই আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৮ এর ১৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে বৈঠক করে।

ডাকসুর গঠনতন্ত্র ও নির্বাচনের আচরণবিধি পরিবর্তন করে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে তফসিল ঘোষণা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরপর সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ২৮ বছর পর ১১ মার্চ হয় ডাকসু নির্বাচন।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

এসএসসিতে পাসের হার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ

এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ আজ

এসএসসির ফল প্রকাশ সোমবার

৩৯তম বিশেষ বিসিএসের ফল প্রকাশ

যবিপ্রবিতে ৩ শিক্ষার্থীকে আজীবন-৫ জনকে একবছরের জন্য বহিষ্কার

মেডিকেলের মতো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার পক্ষে শিক্ষামন্ত্রী

চবিতে ছাত্রলীগের অবরোধ অব্যাহত

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে অচল ববি

সর্বশেষ খবর

ইন্দোনেশিয়ায় জাভা দ্বীপে ফেরি ডুবি, নিহত ১৫

মধ্যপ্রাচ্যে আরও ১ হাজার সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আদালতেই মারা গেলেন মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুরসি

বাড়ার চার দিন পরই কমলো স্বর্ণের দর