রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭ (১৭:৩৩)

শুরু হলো প্রাথমিক-ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা

শুরু-হলো-প্রাথমিক-ইবতেদায়ী-শিক্ষা-সমাপনী-পরীক্ষা

শুরু হলো প্রাথমিক-ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা

সারাদেশে রোববার শুরু হয়েছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা যাতে অংশ নিয়েছে পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া ৩০ লাখ ৯৬ হাজার ৭৫ জন শিক্ষার্থী।

নকল ও প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান।

সকালে রাজধানীর আইডিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

তবে এ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের ওপর বাড়তি চাপ এবং কোচিং বাণিজ্যের অভিযোগ তুলে প্রাথমিকের এ পর্যায়ে পরীক্ষা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন অভিভাবকরা।

মোট ৭২৬৭টি কেন্দ্রে একযোগে বেলা ১১টা থেকে শুরু হয়েছে ইংরেজি বিষয়ের পরীক্ষা— প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা চলবে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত।

এবার ২৮ লাখ চার হাজার ৫০৯ জন ক্ষুদে শিক্ষার্থী প্রাথমিক সমাপনী এবং দুই লাখ ৯১ হাজার ৫৬৬ জন ইবতেদায়ী পরীক্ষা দিচ্ছে।

এ পরীক্ষায় গত বছর মোট ৩২ লাখ ৩০ হাজার ২৮৮ জন অংশ নিয়েছিল। সে হিসেবে এবার পরীক্ষার্থী কমেছে এক লাখ ৩৪ হাজার ২১৩ জন। ২০১৫ সালে ৩২ লাখ ৫৪ হাজার ৫১৪ জন পঞ্চমের সমাপনীতে বসেছিল।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছে, পরীক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী কেউই মোবাইল ফোন নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

কেবল জরুরি প্রয়োজনে অফিস কক্ষে সীমিত ব্যবহারের জন্য কেন্দ্র সচিব মোবাইল ফোন নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন।

তবে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র গ্রহণ ও পরীক্ষা কক্ষে বিতরণ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকেও মোবাইল ফোন বন্ধ রাখতে হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার মতিঝিলে আইডিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, এবার ছাত্রদের চেয়ে এক লাখ ৮৯ হাজার ৮০১ জন বেশি ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। দেশের বাইরে ১২টি কেন্দ্রেও প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে।

প্রাথমিক সমাপনীতে এবার দুই হাজার ৯৫৩ জন এবং ইবতেদায়ীতে ৩৭৯ জন বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে তাদের অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেয়া হবে।

পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য ২০০৯ সাল থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা শুরু হয়। আর ইবতেদায়ীতে এ পরীক্ষা হচ্ছে ২০১০ সাল থেকে।

প্রথম দুই বছর বিভাগভিত্তিক ফল দেয়া হলেও ২০১১ সাল থেকে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের সমাপনীর ফল দেয়া হচ্ছে।

আগে এ পরীক্ষার সময় দুই ঘণ্টা থাকলেও ২০১৩ সাল থেকে পরীক্ষার সময় আধ ঘণ্টা বাড়িয়ে আড়াই ঘণ্টা করা হয়।

প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে গত বছর থেকে দেশের ৬৪ জেলাকে বিশেষ আটটি অঞ্চলে ভাগ করে আট সেট প্রশ্ন ছাপিয়ে প্রাথমিক ও ইবেতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী নিচ্ছে সরকার।

প্রাথমিক সমাপনীর সূচি

১৯ নভেম্বর ইংরেজি, ২০ নভেম্বর বাংলা, ২১ নভেম্বর বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, ২২ নভেম্বর প্রাথমিক বিজ্ঞান, ২৩ নভেম্বর ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এবং ২৬ নভেম্বর গণিত।

ইবতেদায়ী সমাপনীর সূচি

১৯ নভেম্বর ইংরেজি, ২০ নভেম্বর বাংলা, ২১ নভেম্বর বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং বিজ্ঞান, ২২ নভেম্বর আরবি, ২৩ নভেম্বর কুরআন ও তাজবিদ এবং ২৬ নভেম্বর গণিত।

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বিবেচনায় জাতীয়ভাবে এটি দেশের সবচেয়ে বড় পরীক্ষা। তবে জাতীয় শিক্ষানীতি অনুযায়ী প্রাথমিক শিক্ষাকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ঘোষণা করার পরও তা বাস্তবায়ন না করে পঞ্চম শ্রেণি শেষে এই পরীক্ষা বহাল রাখা নিয়ে অভিভাবক ও শিক্ষাবিদদের মধ্যে সমালোচনা আছে। এই পরীক্ষাকে শিশুদের ওপর একধরনের ‘বোঝা’ বলেও অনেক অভিভাবক অভিযোগ করে আসছেন।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

ঢাবি অধিভুক্ত সরকারি ৭ কলেজের পরীক্ষার ফল প্রকাশ

রাবিতে সাম্প্রদায়িক প্রশ্ন করায় দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

ভর্তি ফি কমানো হলো নবিপ্রবিতে

শিগগিরই আসছে কোচিং বাণিজ্য বন্ধে ‘শিক্ষা আইন’

আরও খবর

দুবাইয়ে জয় দিয়ে টি-টেন লিগ শুরু তামিম-সাকিবের

বিবিসি ওভারসীজ স্পোর্টস পারসোনালিটি অ্যাওয়ার্ড জিতলেন ফেদেরার

হুইলচেয়ার ক্রিকেট: ভারতকে হারালো বাংলাদেশ

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস: শতাব্দীর বর্বরতম নিধনযজ্ঞ দিন

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এসপি হলেন ৯৬ কর্মকর্তা

হেদায়েত হোসেন চৌধুরীর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী অনুষ্ঠিত

এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী আর নেই

বিবিসি ওভারসীজ স্পোর্টস পারসোনালিটি অ্যাওয়ার্ড জিতলেন ফেদেরার

হুইলচেয়ার ক্রিকেট: ভারতকে হারালো বাংলাদেশ