সংস্কৃতি-বিনোদন

সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ (১০:৫৮)

জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে সংগীতশিল্পী লাকী আখন্দ

লাকী আখন্দ

জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে মুক্তিযোদ্ধা সংগীতশিল্পী লাকী আখন্দ।

পরিবার পরিজন সূত্রে জানা গেছে, ফুসফুসের ক্যান্সারে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

শিল্পীর মেয়ে মাম্মিন্তি আখন্দ নূর বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকরা হাল ছেড়ে দিয়েছেন।

গুরুতর অসুস্থ হয়ে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলে ফুসফুসে ক্যান্সার ধরা পড়ে লাকী আখন্দের। এরপর ঢাকা থেকে থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেন তিনি। সেখান থেকে ঢাকায় ফেরার পর তাকে কেমোথেরাপি দেয়া হয়।

আশির দশকের তুমুল জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী লাকী আখন্দ একাধারে সঙ্গীত পরিচালক, সুরকার ও গীতিকার। ১৯৮৪ সালে সারগামের ব্যানারে প্রথমবারের মতো একক অ্যালবাম বের করেন লাকী আখন্দ।

তার অ্যালবামের তালিকায় রয়েছে ‘এই নীল মণিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘রীতিনীতি জানি না’, ‘মামনিয়া’, ‘আগে যদি জানতাম’ গানগুলো শ্রোতাদের মাঝে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে।

১৯৮৭ সালে ছোট ভাই হ্যাপী আখন্দের মৃত্যুর পরপর সঙ্গীতাঙ্গন থেকে অনেকটাই স্বেচ্ছায় নির্বাসন নেন গুণী এ শিল্পী।

মাঝখানে প্রায় এক দশক নীরব থেকে ১৯৯৮-এ ‘পরিচয় কবে হবে’ ও ‘বিতৃষ্ণা জীবনে আমার’ অ্যালবাম দুটি নিয়ে আবারো শ্রোতাদের মাঝে ফিরে আসেন লাকী আখন্দ।

এছাড়াও রয়েছে

নিলামে বব ডিলানের গিটারের দাম উঠেছে অর্ধ মিলিয়ন ডলার

না ফেরার দেশে তাজিন আহমেদ

প্রিন্স হ্যারি-গান মার্কেলের রাজকীয় বিয়ের প্রস্তুতি সম্পন্ন

বিয়ে করলেন রাজ-শুভশ্রী

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৭তম জন্মজয়ন্তী

কলকাতায় ‘নায়করাজ রাজ্জাক অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন আলমগীর

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে সাধারণ মানুষের অবদান উপেক্ষিত, মতামত বিশিষ্টজনদের

ফুলেল শ্রদ্ধায় সিক্ত হলেন কবি বেলাল চৌধুরী

৪ জেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ নিহত ৫

চলে গেল শিশু মুক্তামনি

না ফেরার দেশে তাজিন আহমেদ

তোমরা কি এ বিশাল নাফ নদ হয়ে এসেছো? রোহিঙ্গা শিশুদের প্রিয়াঙ্কা